ইউভানকে কোলে নিয়েই টলিউডের বড় এক পার্টিতে গেলেন অভিনেত্রী শুভশ্রী, নাচলেন ছেলেকে নিয়েই, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- একজন দায়িত্ববান মা হিসেবে শুভশ্রী গাঙ্গুলী কেমন সেই প্রশ্ন থেকে চেয়ে বারবার অনুরাগীদের মনে তেমনভাবে কোন উত্তর না পাওয়া গেলেও সম্প্রতি এই ভিডিওটি দেখলে আপনি নিজে বুঝতে পারবেন যে আসলে শুভশ্রী গাঙ্গুলী তার ছেলের প্রতি কতটা যত্নশীল । আমরা জানি যে গত তিন বছর আগে শুভশ্রী গাঙ্গুলী রাজ চক্রবর্তীর সাথে বিবাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয় । তারপর গতবছর ল-কডা-উন এর সময় তার ঘর আলো করে আসে ছোট্ট একটি পুত্র সন্তান যার নাম ইউ ভান । এবং তাকে নিয়ে কে-টে যায় শুভশ্রী গাঙ্গুলী সারাটা দিন । তার নানা ধরনের খুনসুটি মজা করার ভিডিও মাঝেমধ্যেই শেয়ার করে রাখেন তিনি তার অনুরাগীদের সাথে ।

এবং সেই সমস্ত ভিডিও গু-লি মুহূর্তের মধ্যে জনপ্রিয়তা লাভ করে । আপনি জানলে অ-বাক হবেন যে ইতিমধ্যে একটি ফ্যান পেজ খোলা হয়ে গেছে।দেখতে দেখতে ছোট পুত্র সাত মাস বড় হয়ে গেল । এই সাত মাসে সে শিখে ফেলেছে অনেক কিছু। এমনকি আলতো আলতো সুরে গান গাইতে পারছে । এখন নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারছে । একাই আম খেতে পারছে । তার পাশাপাশি জানলার কাছে ধা-ক্কা মেরে বাইরে যাওয়ার বায়না ও করতে শিখে গেছে। আর এতেই পরিপূর্ণতা পেয়েছে মাতৃত্বের এমনটা জানিয়েছিলেন শুভশ্রী কিছুদিন আগে ।

এখনো একা নয় শুভশ্রী গাঙ্গুলী যেখানেই যায় তার ছেলেকে নিয়ে যায় পার্টি হোক বা যে কোন অনুষ্ঠানে সবেতেই এখন ক্যামেরায় ধরা পড়ে শুভশ্রী গাঙ্গুলীর করলে তার ছেলে। ছেলের প্রতি দায়িত্ব থাকবে একজন মায়েরে এমনটা খুব স্বাভাবিক । কিন্তু অনেকে হয়ত এমনটা মনে করেন যে অভিনেতা এবং অভিনেত্রী দের ক্ষেত্রে ব্যাপার-স্যাপার একটু আলাদা হয় । যেহেতু তারা প্রচুর পরিমাণে ব্যস্ত থাকে নিজেদের কাজ নিয়ে তাই সন্তানকে দেখার তেমনভাবে সময় পায়না । তাই বিভিন্ন পরিচারিকা বা কেয়ারটেকার এর কাছে রেখে দেয় তাদেরকে ।

কিন্তু এই ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যে । আরো একবার প্রমাণ করে দিলেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী । সম্প্রতি ইউটিউবে ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সেখানে কোন একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী । খুব সম্ভবত কারণ জন্মদিনের পার্টি ছিল । এবং তার সাথে দেখা গেছে তার ছোট্ট ছেলেকে । ভিডিওটি দেখলে আপনি বুঝতে পারবেন যে পার্টিতে যে শুভশ্রী গাঙ্গুলী হ-ইহু-ল্লোড় করে আনন্দ করতে মজা করত নাচ করতো সেই শুভশ্রী গাঙ্গুলী কিন্তু এখন যথেষ্ট দায়িত্বশীল একজন মা এ পরিণত হয়েছে । ছেলেকে বিন্দুমাত্র হাতছাড়া করতে চাইছে না । এমনকি চেয়ারে বসিয়ে রাখার পর যখন ছোট্ট ছেলেটি পরে যাওয়ার উপক্রম হয় তখন তৎক্ষণাৎ তাকে আগলে ধরে নেয় । এর থেকে প্রমাণিত হয় যে প্রতিটি মায়ের অনুভূতি এক এবং যত্নশীল এর মাত্রা এক থাকে তার ছেলের প্রতি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *