হীরের আংটি থেকে শুরু করে চার চাকা গাড়ি! নীল তৃনাকে কী কী দিলেন বিয়েতে? ভিডিও করে দেখালেন তৃনা, রইলো ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- অবশেষে বাস্তব জীবনের সাথে মিলে গেছে ধারাবাহিকের জীবন । কারণ সম্প্রতি বি-বাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয়েছে নীল এবং তৃণা । বেশ কিছুদিন আগে খরকুটো ধারাবাহিকের অভিনেত্রী তৃণা সাহা ধারাবাহিক জগতে বিবাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয় । কিন্তু এবার পালা বাস্তব জীবনে । গত চৌঠা ফেব্রুয়ারি এবং একে অপরের সাথে বিবাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয় সে ঘটনা আমরা ইতিমধ্যে প্রত্যেকে জানি । কারণ সেই ঘটনা ছোটখাটো মুহূর্ত-গু-লি ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও আকারে ঘোরাফেরা করছে ন।

১০ বছর ধরে তারা প্রেমে লি-প্ত ছি-লেন অর্থাৎ কলেজ জীবন থেকেই তৃণা এবং নীল একে অপরকে ভালবাসত । মাঝখানে ঘটে গিয়েছিল তাদের বি-চ্ছেদ । তবে ২০১৭ সালে আবার সম্পর্কে জোড়া লাগে এবং থাইল্যান্ড এগিয়ে তারা সাথে সময় কাটিয়ে আসে । এরপর সব বা-ধা-বি-পত্তি পে-রিয়ে বিয়ের মন্ডপ অব্দি চলে এলো তাদের এই ভালোবাসা। এবং তাদের এই ভালোবাসাকে আশীর্বাদ জানাতে তাদের বিয়ের মন্ডপে উপস্থিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

আপনাদের মধ্যে অনেকেরই হয়তো জানতে ইচ্ছে করছে যে নীল এবং তৃনা সাহার বিয়েতে তৃণার বাবা নতুন জামাইকে কি কি উপহার দিলেন ? তৃণার বাবা নীলকে দিয়েছেন একটি সোনার আংটি যেটি দেখতে অত্যন্ত আকর্ষণীয় এবং এই আংটির দাম অত্যন্ত বেশি । এ অংশটি কেনা হয়েছে সেনকো গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড থেকে । প্রসঙ্গত উল্লেখ্য বিয়ের যাবতীয় গয়না কেনা হয়েছে সেনকো গোল্ড এর থেকে । পাশাপাশি নীল কে দিয়েছে একটি সোনার ব্রেসলেট এবং সোনার চেন ও একটি ঘড়ি সেট এবং একটি পারফিউমের সেট সব মিলিয়ে সোনা দিয়ে দিয়েছে নতুন জামাইকে তৃণার বাবা এমনটা বলা যেতেই পারে ।

এর পাশাপাশি ভক্ত মহলের একাংশের অনুরোধ যে নীল তৃনাকে কি উপহার দিলেন বিয়েতে সেটি জানার জন্য এবং সেই চাহিদার জন্য সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে আবার একটি নতুন ভিডিও এসেছে নিল তৃনাকে নিয়ে । যেখানে জানানো হচ্ছে যে বিয়েতে কি কি উপহার দিয়েছেন নীল তৃনাকে । ভিডিও র একদম শেষে দেখা যাচ্ছে যে তত্ব রয়েছে সেখানে রয়েছে দামী জুতো পোশাক ব্র্যান্ড সহ আরো অনেক কিছু । এমনকি নীল তৃনাকে বেশ কিছু সোনার গয়না উপহার দিয়েছে । তার সাথে একটি নতুন গাড়ি দিয়েছে উপহার । সব মিলিয়ে নীল তৃনাকে প্রায় তিন লক্ষ টাকার কসমেটিক কিনে দিয়েছে , দিয়েছে দামি শাড়ি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *